মিরাজুল ইসলাম, সাবেক শিক্ষক
ঢাকা রেসিডেনসিয়াল মডেল কলেজ
সময়: ২ ঘণ্টা ৩০ মিনিট                পূর্ণমান: ১০০
প্রদত্ত অনুচ্ছেদটি পড়ে ১ ও ২ নং প্রশ্নের উত্তর দাও:
মানুষ তখন একটু একটু করে সভ্য হচ্ছে। কী করে সবার সঙ্গে মিলেমিশে থাকা যায়, শিখছে সেইসব কায়দাকানুন। ও দিকে বনে বনে তখন পশুদের রাজত্ব। হাজার রকমের প্রাণী, অসংখ্য পাখ-পাখালি। বেশ শান্তিতেই কাটছিল বনের পাখি আর প্রাণীদের দিনগুলো। কিন্তু একদিন হলো কি তাড়া খেয়ে মস্ত একটা হাতি এই বনে ঢুকে পড়ল। হাতিটার সে কী বিশাল শরীর। পাগুলো বট পাকুড় গাছের মতো মোটা। শুঁড় এতটাই লম্বা যে আকাশের গায়ে গিয়ে বুঝি ঠেকবে। তার গায়েও অসীম জোর। এই শরীর আর শক্তি নিয়েই তার যত অহংকার। মেজাজটাও দারুণ তিরিক্ষি। তো যেই-না হাতিটার ঐ বনে ঢোকা, অমনি শুরু হয়ে গেল তোলপাড়। নতুন অতিথি এসেছে, সবাই স্বাগত জানাবার জন্য প্রস্তুত হচ্ছে। কিন্তু এই দুষ্টু হাতিটার সে-কী তুলকালাম কান্ড! খুব জোরে গলা ফাটিয়ে দিল প্রচন্ড একটা হুঙ্কার। থরথর করে কেঁপে উঠল সমস্ত বন। গাছে গাছে পরম নিশ্চিন্তে বসেছিল পাখি, তারা ভয়ে ডানা ঝাপটাতে শুরু করল।
১.নিচের শব্দগুলোর অর্থ লেখ: (৫টি)                                                                                                      ৫
ক. বন   খ. অহংকার  গ. তিরিক্ষি               ঘ. তুলকালাম কান্ড  ঙ. হুঙ্কার  চ. বিশাল ছ. অত্যাচার
২.নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লেখ:
ক. বনের প্রাণীদের দিন কেমন কাটছিল?                                                                                                 ২
খ. প্রচন্ড হুঙ্কার দিয়েছিল কে? পাখিরা কেন ডানা ঝাপটাতে শুরু করল?                                                           ৪
গ. হাতি বনে ঢুকে কী ধরনের আচরণ শুরু করেছিল? শেষ পর্যন্ত হাতির কী পরিণতি হয়েছিল?                              ৪
নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে ৩ ও ৪ নম্বর প্রশ্নের উত্তর দাও:
মোবাইল ফোন হচ্ছে আধুনিক বিজ্ঞানের এক বিস্ময়কর অবদান। এর অপর নাম সেলুলার ফোন। মোবাইল ফোনের আকৃতি ও ব্যবহার পদ্ধতির ওপর ভিত্তি করে একে মুঠোফোনও বলা হয়ে থাকে। এর রয়েছে ব্যাপক উপযোগিতা, তাই যোগাযোগের ক্ষেত্রে আজ মোবাইল ফোন একটি জনপ্রিয় মাধ্যম হয়ে উঠেছে। বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তের সাথে সংযোগ স্থাপনে মোবাইল ফোন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। এর মাধ্যমে মানুষের সাথে মানুষের যোগাযোগের যেমন দ্রুত উন্নতি সাধিত হয়েছে, তেমনি ঘটেছে এর ব্যাপক বিস্তার। পৃথিবীর তথ্য ও যোগাযোগ ব্যবস্থার এটি একটি আধুনিক সংস্করণ। মোবাইল ফোন সহজে সর্বত্র বহনযোগ্য। টেলিফোন বা ল্যান্ডফোন চলার পথে কোথাও নিয়ে যাওয়া যায় না কিংবা নিয়ে গেলেও লাইনের সাথে সংযোগ ছাড়া তা ব্যবহার করা যায় না। যোগাযোগের ক্ষেত্রে টেলিফোন ব্যবহারের এই জটিলতা দূর করার জন্যই বিজ্ঞানীরা মোবাইল ফোন আবিষ্কার করেন। হাতের মুঠোয় সহজে বহনযোগ্য সেটে সিম কার্ড বা রিম কার্ড সংযুক্ত করে এই ফোন ব্যবহার করা যায়। হাতের মুঠোয় সহজে ব্যবহার করা যায় বলে এর অপর নাম মুঠোফোন। বর্তমান বিশ্বে মোট চার প্রযুক্তির মোবাইল ফোন রয়েছে। তার মধ্যে বাংলাদেশে দুই
প্রযুক্তির ব্যবহার আছে। যেমন: জিএসএম প্রযুক্তি ও সিডিএমএ প্রযুক্তি। মোবাইল ফোনে ইন্টারনেট সংযোগ দিয়ে দেশে বিদেশে তথ্য সংরক্ষণ ও আদান প্রদান করা যায়।
৩.নিচে কয়েকটি শব্দ ও শব্দার্থ দেওয়া হলো। বাক্যগুলোর শূন্যস্থানের উপযুক্ত শব্দটি উত্তরপত্রে লেখঃ
১ ´ ৫ = ৫
শব্দ                           শব্দার্থ
মোবাইল ফোন            তারবিহিন এক ধরনের প্রযুক্তি
ব্যাপক                       অনেক
হাতের মুঠোয়               হাতের মুঠোয় রাখা যায় এমন
সংস্করণ                      উত্কর্ষ সাধন
ইন্টারনেট                   কম্পিউটারের যোগাযোগ ব্যবস্থা
তথ্য                           জ্ঞাত হওয়া বা জানার মত সঠিক বিষয়
ল্যাপটপ                    ছোট এক ধরনের কম্পিউটার
ক. — হচ্ছে যোগাযোগ ব্যবস্থার আধুনিক সংস্করণ।
খ. মানুষের হাতে ও পকেটে রাখার সহজ প্রযুক্তি —
গ. মোবাইল ফোনে — ব্যবহার করা যায়।
ঘ. — আদান প্রদানে মোবাইল ফোন খুবই জনপ্রিয় মাধ্যম।
ঙ. বর্তমানে — সবার কাছে ব্যাপক জনপ্রিয়।
৪.নিচের প্রশ্নগুলোর উত্তর লিখ:                                                                                              ৩  ´ ৫ = ১৫
ক. বাংলাদেশে কয় প্রযুক্তির মোবাইল ফোন ব্যবহার করা হয়? মোবাইল ফোন সকলের কাছে এতো জনপ্রিয় কেন? পাঁচটি বাক্যে লিখ।
খ. মোবাইল ফোনের পাঁচটি ব্যবহার লিখ।
গ. মোবাইল ফোনকে মুঠোফোন বলা হয় কেন? মোবাইল ফোনের পাঁচটি অপকারিতা লিখ।
৫.ক্রিয়াপদের চলিত রূপ লিখ (৫টি):                                                                                            ১´৫ = ৫
ঘুরিতেছে, আঁকিব, ছুটিতেছে, আসিতেছে, পড়িতেছে, লিখেতেছে, হইতেছে
৬.নিচের অনুচ্ছেদটি পড়ে (কে, কী, কোথায়, কীভাবে, কেন, কখন) নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশ্ন তৈরি কর
(৫টি):                                                                                                                                  ১ ´৫ = ৫
কাজী নজরুল ইসলাম বাংলাদেশের জাতীয় কবি। আমাদের এই প্রিয় কবি অবিভক্ত বাংলার বর্ধমান জেলার আসানসোল মহকুমার চুরুলিয়া গ্রামে ১৩০৬ সালের ১১ জ্যৈষ্ঠ মঙ্গলবার জন্মগ্রহণ করেন। নজরুলের বয়স যখন মাত্র নয় বছর তখন তার পিতার মৃত্যু হয়। তারই মধ্য দিয়ে ১০ বছর বয়সে প্রাথমিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন। অতঃপর তাকে ঐ মক্তবের শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয় এবং মসজিদ ও মাজারের কাজও তিনি পেয়ে যান। কিন্তু এসব কাজ তার কাছে ভালো লাগে নি। তিনি ভবঘুরে জীবনে ফিরে যান। এ সময়ে পুলিশ সাব-ইন্সপেক্টর কাজী রফিজউল্লার নজরে পড়েন। তিনি তাকে ময়মনসিংহের ত্রিশাল থানার কাজীর শিমলা গ্রামে নিয়ে আসেন। ভর্তি করিয়ে দিলেন দরিরামপুর হাই স্কুলে। ক্লাসে তিনি অমনোযোগী থাকলেও মেধাবী ছাত্র ছিলেন। পরবর্তীতে পড়া ছেড়ে দিয়ে তিনি চুরুলিয়ায় ফিরে আসেন। কবি নজরুল ছিলেন স্বাধীনচেতা। তাইতো তিনি ইংরেজ বিরোধী নানা ধরনের কবিতা লিখে দেশের মানুষকে জাগিয়ে তোলেন।
৭.নিচের যুক্ত বর্ণগুলো ভেঙ্গে শব্দ তৈরি করে বাক্য গঠন কর: (৫টি)                                                 ২ ´৫ = ১০
(ক) ক্ষ  (খ) হ্ম  (গ) ল্প (ঘ) চ্ছ  (ঙ) ষ্ক   (চ) ষ্ণ  (ছ) জ্ঞ
৮.বিরাম বসিয়ে অনুচ্ছেদটি পুণরায় লেখঃ৫
দেশকে যতটা পারা যায়, কাছে থেকে দেখতে হবে। দেশ মানে এর মানুষ, জনপদ, নদী, আকাশ,  প্রান্তর, পাহাড়, সমুদ্র এইসব। দেশ হলো আসলে জননীর মতো। দেশকে ভালোবাসার মধ্য দিয়েই সার্থক হয়ে উঠবে আমাদের জীবন।
৯.এককথায় প্রকাশ কর: (৫টি)১ × ৫ = ৫
ক. সংখ্যায় সবচেয়ে বেশি এমন
খ. দেশের জন্য প্রাণ উত্সর্গকারী
গ. যার মূল্য নির্ধারণ করা যায় না
ঘ. এক দেশ হতে আর এক দেশ
ঙ. নিজেকে অনেক বড় মনে করে যে
চ. সুন্দরী গাছ আছে যে বনে
ছ. দিকের শেষ সীমান্ত
১০.প্রদত্ত শব্দগুলোর বিপরীত শব্দ লেখ ঃ (৫টি)                                                                          ১ × ৫ = ৫
বুদ্ধিমান, সুন্দর, দুর্বীনিত, সার্থকতা, পরাধীন, বিদেশি, সৌভাগ্য
১১। নিচের কবিতার লাইনগুলো পড়ে প্রশ্নগুলোর উত্তর লিখঃ
থাকব না কো বদ্ধ ঘরে
দেখব এবার জগত্টাকে,
কেমন করে ঘুরছে মানুষ
যুগান্তরের ঘূর্ণিপাকে।
দেশ হতে দেশ দেশান্তরে
ছুটছে তারা কেমন করে,
কিসের নেশায় কেমন করে
মরছে যে বীর লাখে লাখে,
(ক) কবিতাংশের কবির নাম কী? কবি বদ্ধ ঘরে থাকতে চান না কেন ?                                                           ২
(খ) কবিতাংশে মূলভাব লিখ।                                                                                                                 ৫
(গ) কবিতাংশের কবির নাম কী? কিসের আশায় বীর মরণকে বরণ করছে?                                                      ৩
১২। মনে কর, তুমি নবকুমার প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থী। তোমার নাম বাবলি/ বাবলু। তুমি একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষ্যে তোমার বিদ্যালয়ে সুন্দর হস্তাক্ষর / রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে চাও। উপযুক্ত তথ্য দিয়ে নিচের ফরমটি পূরণ কর।                                                                ৫
১.নাম :………………………………………………
২. বিদ্যালয়ের নাম : ……………………………
৩.শ্রেণি : ………………শাখা:……………………
৪.  রোল নং : …………………………
৫.মাতার নাম : …………………………..
৬.পিতার নাম : ………………………..
৭.জন্ম তারিখ : ………………………..
৮.প্রতিযোগিতা করতে ইচ্ছুক বিষয়:…………………………………….
আবেদনকারীর স্বাক্ষর ও তারিখ
১৩.মনে কর, তোমার নাম নাফিস / নাফিসা। তোমার বিদ্যালয়ের নাম ঢাকা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। আন্ত:স্কুল ফুটবল প্রতিযোগিতার ফাইনাল খেলা দেখার জন্য চতুর্থ পিরিয়ডের পর ছুটির জন্য প্রধান শিক্ষকের নিকট দরখাস্ত লিখ।                                                                                    ৫
১৪.নিচের যেকোন একটি বিষয়ে ২০০ শব্দের মধ্যে রচনা লেখঃ                                                                   ১০
(ক) কম্পিউটার: ভূমিকা— আবিষ্কার — কম্পিউটারের অবদান — অপকারিতা— উপসংহার।
(খ) বৃক্ষরোপণ: ভূমিকা—সময়—প্রয়োজনীয়তা—সচেতনতা সৃষ্টিতে করণীয়—উপসংহার।                (গ) টেলিভিশন: সূচনা—আবিষ্কার— প্রয়োজনীয়তা— উপকারিতা — অপকারিতা — উপসংহার।
(ঘ) বাংলাদেশের ষড়ঋতু: ভূমিকা— গ্রীষ্মকাল— বর্ষাকাল— শরত্কাল— হেমন্তকাল— শীতকাল— বসন্তকাল— উপসংহার।
Share Button