সাতক্ষীরা প্রতিনিধি:
সাতক্ষীরার কলারোয়ায় একটি কুলবাগানের ড্রেন থেকে সাচিতা হোসেন সেজুতি নামের অষ্টম শ্রেণির স্কুলছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।
সাচিতা হোসেন সেঁজুতি জালালাবাদ গ্রামের কৃষক সোহরাব হোসেন পলাশের মেয়ে। সে কলারোয়া পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী।
মেয়েটির বাবা সোহরাব হোসেন পলাশ জানান, রোববার সকালে তার মেয়ে বাড়ি থেকে স্কুলে যায়। এরপর থেকে সে আর বাড়ি ফেরেনি। সারাদিন তাকে না পেয়ে রাতে আমি কলারোয়া থানায় জিডি করি।
মেয়ের হত্যা প্রসঙ্গে পলাশ জানান, আমার মেয়ের সাথে প্রতিবেশি আলতাফ হোসেনের ছেলে আব্দুর রহমানের সাথে এক বছর আগে থেকে সম্পর্ক ছিল। আব্দুর রহমান কলারোয়া সরকারি কলেজে এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষে পড়ে। এনিয়ে শালিস-বিচার ও হয়েছে। আমি তাদের এই সম্পর্ক মেনে নেইনি। ধারণা করছি, আব্দুর রহমানা আমাকে শিক্ষা দিতে মেয়েকে হত্যা করেছে।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নাসির উদ্দীন মৃধা জানান, সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মেয়েটির মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। তার গলায় ওড়না পেচিয়ে শ^াসরোধ করে হত্যার আলামত মিলেছে। তবে ধারণা করছি, তাকে অন্য কোথাও হত্যা করে এখানে ফেলে রাখা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলে জানান তিনি।

Share Button