• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:০০ অপরাহ্ন

ইজতেমার দ্বিতীয় প‌র্বের জুমার নামাজ আদায়, রোববার আখেরি মোনাজাত

নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪
ছবি-সংগৃহীত

টঙ্গীর তুরাগ তীরে শুরু হয়েছে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। বৃহস্পতিবার বাদ জোহর আম বয়ানের মধ্য দিয়ে ভারতের মাওলানা সাদ কান্ধলভীর অনুসারীদের নিয়ে ইজতেমার এ পর্বের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়।

শুক্রবার ইজ‌তেমার ময়দানে দেশের সর্ববৃহৎ জুমার নামাজ আদায় করা হয়েছে। জুমার নামাজে ইমাম‌তি ক‌রে‌ছেন মাওলানা সাদ কান্ধলভীর বড় ছে‌লে মাওলানা ইউছুফ বিন সাদ। পৌ‌নে দুইটায় জুমার নামাজ শুরু হয়।

শুক্রবার সকাল থেকেই জুমার নামা‌জে অংশ নিতে ইজতেমা ময়দানে মুসল্লিদের ঢল নামে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা মুসল্লিসহ গাজীপুর ও ঢাকার আশপাশের সব জেলার মুসল্লি এতে অংশ নেয়।

জুমার নামাজে অংশ নিতে ইজতেমা ময়দানের আশপাশের বিভিন্ন সড়ক, ফুটপাত ও খালি জায়গায় অবস্থান নেয় মানুষ। এছাড়া অনেকেই বাড়ির ছাদ, নৌকা, গাড়ির ছাদে পাটি, পলিথিন, চট ও পত্রিকা বিছিয়ে নামাজে অংশ নেয়।

শুক্রবার বাদ ফজর বয়ান করেন মাওলানা ইলিয়াস বিন সাদ। তার বয়ানের বাংলা তরজমা ক‌রেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ। জুমার আগে জুমার ফাজায়েল বয়ান ক‌রেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ। জুমার পরে বয়ান ক‌রেন শেখ মোফলে। তার বয়ান বাংলা তরজমা ক‌রেন মাওলানা শেখ আব্দুল্লাহ মনসুর।

এছাড়া আসরের পরে বয়ান ক‌রবেন মাওলানা মোশাররফ। মাগরিবের পরে বয়ান ক‌রবেন মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ। তার বক্তব্য বাংলা তরজমা ক‌রবেন মাওলানা জিয়া বিন কাশেম। শ‌নিবার ফজরের পর বয়ান কর‌বেন মাওলানা সাঈদ বিন সাদ। বাংলা তরজমা কর‌বেন মুফতি ওসামা ইসলাম। সকাল ১০টায় তালিম কর‌বেন ভার‌তের মাওলানা আব্দুল আজিম। যোহরের পরে বয়ান কর‌বেন ভার‌তের মাওলানা শরিফ। বাংলা তরজমা কর‌বেন মাওলানা মাহমুদুল্লাহ। আসরের পরে বয়ান কর‌বেন পা‌কিস্তা‌নের মাওলানা ওসমান। বাংলা তরজমা কর‌বেন মাওলানা আজিম উদ্দিন। মাগরিবের পর বয়ান কর‌বেন ভার‌তের মুফতি ইয়াকুব। বাংলা তরজমা কর‌বেন মাওলানা মনির বিন ইউসুফ।

রোববার ফজরের পর বয়ান কর‌বেন ভার‌তের মুফতি মাকসুদ তার বক্তব্য বাংলা তরজমা কর‌বেন মাওলানা আব্দুল্লাহ। এরপর হেদা‌য়ে‌তি বয়ান। হেদা‌য়ে‌তি বয়া‌নের শে‌ষে হেদায়েতের কথা ও দোয়া।
মোনাজাত প‌রিচালনা কর‌বেন মাওলানা সাদ কান্ধলভীর বড় ছে‌লে মাওলানা ইউসুফ বিন সাদ।
এদিকে ইজতেমার প্রথম পর্বের মতো দ্বিতীয় পর্বেও থাকছে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা। ইজতেমা ময়দান ও আশপাশের সব এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কড়া নজরদারি চলছে।

বাংলাদেশের ৬৪ জেলা থেকেই মানুষ অংশ নিয়েছেন দ্বিতীয় পর্বের এ ইজতেমায়। তারা জেলাভিত্তিক নির্ধারিত খিত্তায় অবস্থান নিয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত শুধু দেশ নয়, দেশের বাইরে থেকেও ইজতেমায় অংশ নিতে এসেছেন অনেক অতিথি। সৌদি আরব, পাকিস্তান, ভারত, ইরাক, তুরস্ক, এশিয়া, আফ্রিকা ও ইউরোপসহ ৫৪টি দেশ থে‌কে শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত ৬ হাজার ৩৬ জন বি‌দে‌শি মুস‌ল্লি ইজ‌তেমার ময়দা‌নে এসেছেন।

এদিকে আগত মুসল্লিদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্যসেবা দিতে দ্বিতীয় পর্বেও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, টঙ্গী সরকারি হাসপাতালসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও প্রতিষ্ঠান মেডিক্যাল ক্যাম্প স্থাপন করেছে।

Share Button


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page