• বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৮:৫৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যে কারনে ইউরোপের তিন দেশ ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিলো, রোহিঙ্গাদের খেয়ে ফেলতো খাদ্য উৎপাদন না বাড়লে, কুকুরের সাথে করতো কাড়াকাড়ি: ব্রি’র ডিজি বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরী পরিবেশ রক্ষা করেই বাস্তবায়িত হবে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে শাবনূরের আহ্বান, আইএমও মহাসচিব ঢাকা সফরে আসছেন কাল নিউইয়র্কের রাস্তায় দেশের পতাকা হাতে মৌসুমী মাদক বিরোধী অভিযানে ৪শ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার, আটক ৩ তদবিরের টাকা ফেরত না পেয়ে পিটিয়ে হত্যা করলেন চাচা শ্বশুরকে, ভারতীয় অধিনায়কের স্ত্রীর সংহতি প্রকাশ ফিলিস্তিনিদের প্রতি  ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ দ্রুত মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

‘খালেদা জিয়ার নির্দেশেই বিএনপি নেতাদের এ নাটক’

আপডেটঃ : সোমবার, ৩০ অক্টোবর, ২০১৭

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার গাড়ি বহরে হামলা বিএনপির পূর্বপরিকল্পিত বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।
হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসনের গাড়ি বহরে হামলা বিএনপির একটি পূর্ব পরিকল্পনা মাত্র। তাদের সেই পরিকল্পনা সফল হয়েছে। খালেদা জিয়ার নির্দেশেই বিএনপি নেতারা এ নাটক সাজিয়েছেন। আর খালেদা জিয়া এখন রোহিঙ্গাদের ঢাল হিসেবে ব্যবহার করছেন। রোহিঙ্গাদের পাশে বিএনপি কখনো দাঁড়ায়নি। এতোদিন কোথায় ছিলেন খালেদা জিয়া। যদি সেটা না হবে তাহলে ত্রাণ দেওয়ার পরিবর্তে কেন তিনি রাজনৈতিক কর্মসূচি করবেন।
তিনি বলেন, কক্সবাজারে প্লেনে যেতে পারতেন। কিন্তু সেটা না করে তিনি গাড়িতে গিয়েছেন। এখানেই স্পষ্ট এটা রোহিঙ্গাদের প্রতি দয়া নয়, বরং রাজনৈতিক কর্মসূচি মাত্র। খালেদার উদ্দেশ্য দেশে বিশৃঙ্খলা তৈরি করা। সে কারণে দেশে এসেই তিনি বিশৃঙ্খলা তৈরি করছেন।
গাড়ি বহরে হামলা বিষয়ে তিনি বলেন, এটা আওয়ামী লীগ করেনি। করেছে বিএনপি (এসময় চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির এক নেতার রেকর্ডিংও শোনান)। আর আওয়ামী লীগ নেতারা যদি হামলা করতো তাহলে সাংবাদিকদের ওপর নয়, বিএনপি নেতাদের ওপর হতো। সেটা তো হয়নি। সুতরাং, বিএনপি ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করতে গিয়ে ধরা পড়েছে।
হাসান মাহমুদ বলেন, আদালতে খালেদা জিয়া কাঁদেন তারেক রহমানের জন্য, আর ফখরুল কাঁদেন তার পেট্রোল বোমা বাহিনীকে বাঁচানোর জন্য। কি আজব তাদের কান্নার রোল। তাই বিএনপিকে স্পষ্ট করে বলতে চাই, যারা দেশে অপরাজনীতি করতে চায় তাদের প্রতি আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। এছাড়া বিএনপি যদি দেশে কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা তৈরির চেষ্টা করে তাহলে তারা রাজনীতি থেকে চিরতরে মুছে যাবে। এজন্য সবকিছু বাদ দিয়ে বিএনপির উচিত সামনের নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নেওয়া।
বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের উপদেষ্টা মো. জাহাঙ্গীর আলম খানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল, বাংলাদেশ স্বাধীনতা পরিষদের সভাপতি মো. জিন্নাত আলী খান জিন্নাহ, সাধারণ সম্পাদক শাহাদাৎ হোসেন টয়েল, আওয়ামী লীগ নেতা এমএ করিম প্রমুখ।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ