• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০৫:৫৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম:

জিমিদের ভুল সংশোধনের লড়াই বাংলদেশ জাপান মুখোমুখি আজ

আপডেটঃ : রবিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০১৭

এশিয়া কাপ হকির ট্রফি উন্মোচন হয় গত ১০ অক্টোবর। ট্রফি ছুঁয়ে আট দেশের আট অধিনায়ক ফটো সেশন করেন। সেদিনই বাংলাদেশের অধিনায়ক রাসেল মাহমুদ জিমির মুখে হাসি দেখা গিয়েছিল। এরপর আর জিমির মুখে হাসি নেই। সবার সামনে দিয়ে যাওয়া আসাও করছেন কিন্তু মনভার জিমির। কি আশা করেছিলেন আর কি হয়েছে। নিজেদের ভালো খেলাটা যেমন আশা করেছিলেন। তা প্রত্যাশানুযায়ী দেখাতে পারেনি। পাকিস্তান এবং ভারতের কাছে দুই ম্যাচ হেরে বিদায়টা প্রত্যাশা অনুযায়ী হয়েছে। গ্রুপের শেষ খেলায় আজ জাপানের বিপক্ষে বাংলাদেশের লড়াই। আজকের খেলার পরও খেলা আছে। হকির নিয়মটা ফুটবলের মতো নয়। গ্রুপ পর্বে চার দলের মধ্যে চার নম্বর হলেই যে বাদ পড়বে তা নয়। এরপরও নিচের সারির দলগুলোর বিপক্ষে সবার সঙ্গে সবার খেলতে হবে।

 

আজ হকি স্টেডিয়ামে বিকাল তিনটায় জাপান এবং বাংলাদেশ খেলাটি শুরু হবে। বাংলাদেশ প্রথম দুটি ম্যাচ রাতে খেলেছে।

 

জাপানের বিপক্ষে বাংলাদেশের হারানোর কিছু নেই। পাকিস্তানের কাছে ৭-০, ভারতের কাছে ৭-০ গোলে হেরে আন্তর্জাতিক হকি অঙ্গনে বাংলাদেশ নিজেদের অবস্থান জেনে গেছে। বাস্তবতা মেনে নিলেও অধিনায়ক জিমি দেখেছেন পাকিস্তানের বিপক্ষের ম্যাচের চেয়ে ভারতের বিপক্ষের ম্যাচে বাংলাদেশের উন্নতি আছে। জিমি তুলে ধরলেন ভারতের বিপক্ষে তৃতীয় ও চতুর্থ কোয়ার্টারে ভালোর বর্ণনা। আন্তর্জাতিক হকিতে ভারত বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন, এশিয়া কাপ জিতেছে, অলিম্পিক গেমস হকিতে সোনার পদক জয় করেছে, এশিয়ান গেমস হকিতে সোনার পদক আছে। ভারত পাকিস্তানের হকির সাফল্যের ঝুড়িতে অসংখ্য সাফল্য জমা আছে। সেই দুটি দেশের সঙ্গে তুলনায় বাংলাদেশ এখনও অনেক পিছিয়ে। দুই খেলায় ১৪ গোলের হিসাবটা যদি করা হয় তাহলে এশিয়া কাপ হকির পেছনের আসর দেখলে বড় হার খুঁজে পেতে সময় লাগবে না।

 

ভারত ও পাকিস্তারে বিপক্ষে লড়াই করে বেরিয়ে আসা সমস্যাগুলো যেন আজ জাপানের বিপক্ষে না উঠে আসে সেটাই এখন বড় টার্গেট জিমিদের। তাদের চোখে উন্নতি যেটুকু হয়েছে তা আজ জাপানের বিপক্ষে কাজে লাগাতে চান কোচ মাহবুব হারুন, জিমি, মিমো, আশরাফুল, কৌশিকরা। জাপানের বিপক্ষে আজ কোথাও ভুল করতে চান না জিমিরা। দুই ম্যাচে যেসব ভুল হয়েছে আজ সেই সব ভুল শুধরিয়ে জাপানকে মোকাবিলা করার লড়াইয়ে নামবে বাংলাদেশ। ভুল সংশোধনের লড়াইয়ে যদি ভালো কিছু করা যায় তাহলে স্থান নির্ধারণী লড়াইয়ে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ভালো হবে এমন প্রত্যাশা বাংলাদেশ দলের মধ্যে আছে।

 

এশিয়া কাপ হকি শুরু হওয়ার আগে হকি স্টেডিয়ামে জাপান বাংলাদেশ প্রস্তুতি ম্যাচ খেলেছিল। বাংলাদেশ জিতেছিল। তা নিয়ে উচ্ছ্বাসের কিছু নেই। জাপান পাকিস্তানের বিপক্ষে ২-২ গোলে ড্র করে দেখিয়েছে তারা অনেক এগিয়ে। কাউন্টার আক্রমণে বাংলাদেশের চেয়ে জাপান অনেক দূর এগিয়ে।

 

জাপানের ভারতীয় বংশোদ্ভূত ডাচ কোচ আইকম্যান জানিয়েছেন, প্রস্তুতি ম্যাচ আর অফিসিয়াল ম্যাচের মধ্যে পার্থক্য আছে। এখন ম্যাচে খেলোয়াড়দের মানসিক, শারীরিক এবং দৃষ্টিভঙ্গি সবই অন্যরকম।

 

জাপান যদি বাংলাদেশকে হারায় তাহলে পাকিস্তানের সমান ৪ পয়েন্ট হবে। গোল গড়ে এগিয়ে থাকতে চাইবে জাপান। কারণ ভারতেও ৪ পয়েন্ট। ভারত যদি পাকিস্তানকে হারিয়ে দেয় তাহলে গোল গড়ে জাপানের সঙ্গে সুপার ফোরে উঠতে ধাক্কাধাক্কি করতে হবে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ