• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১১:০১ অপরাহ্ন

‘তামিম সত্য কথাই বলেছে’

আল ইসলাম কায়েদ
আপডেটঃ : বুধবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৭

ক্রিকেটার, কোচ, কর্মকর্তা থেকে শুরু করে বোর্ড কর্তা সবাই একবাক্যে স্বীকার করেছেন মিরপুরের উইকেট টি-টোয়েন্টির আদর্শ উইকেট নয়। গত ২ ডিসেম্বর রংপুর রাইডার্সের বিরুদ্ধে ম্যাচের পর উইকেটের বাস্তব চিত্র নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলেছিলেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের অধিনায়ক তামিম ইকবাল। আর চরম সত্য বলেই কোপানলে পড়েছেন তিনি।

তামিমের মন্তব্য পছন্দ হয়নি বিসিবির। তাই বোর্ড থেকে চিঠি পাঠানো হয়েছে তাকে। গতকাল বিসিবি পরিচালক আকরাম খান বলেছেন, আগামী ২১ ডিসেম্বর শুনানিতে উপস্থিত হতে হবে বাংলাদেশের টেস্ট দলের সহ-অধিনায়ককে। সেখানে তামিমের মন্তব্যের ধরন ও তার ভাবনা জানতে চাইবে বিসিবি।

এ দিকে গতকাল খুলনা টাইটান্সের বিপক্ষে ম্যাচের পর কুমিল্লার কোচ সালাউদ্দিন বলেছেন, তামিম সত্য কথাই বলেছেন। তার মতে, মিরপুরের উইকেট টি-টোয়েন্টির জন্য আসলেই ভালো নয়।

তামিম চিঠি পাওয়ায় বিস্মিত কিনা জানতে চাইলে গতকাল ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সালাউদ্দিন বলেছেন, ‘জানি না তামিম চিঠি হাতে পেয়েছে কি না। যদি এরকম হয়ে থাকে, তামিম সত্য কথাই বলেছে। তামিম কোনো মিথ্যা কথা বলেনি। তার অধিকার আছে সত্য বলার।’

বিপিএলে ইতোমধ্যে তিন ডিমেরিট পয়েন্ট রয়েছে তামিমের নামের পাশে। উইকেটের সমালোচনা করায় এবার শোকজ চিঠি দেয়া হয়েছে তাকে। তবে তামিমের মন্তব্যকে সমর্থন করছেন সালাউদ্দিন।

তিনি বলেন, ‘সেটা বলতে পারব না কেন তাকে আলাদা করে দেওয়া হলো। তামিম যেটা বলেছে একেবারে ঠিক বলেছে। উইকেটটা আসলেই ভালো ছিল না। আমি তামিমকে সব সময়ই ডিফেন্ড করব। যে উইকেটে খেলা হয়েছে সেটা টি-টোয়েন্টির জন্য কোনো উইকেট ছিল না। এখন সত্য কথা বলে যদি কোনো বিপদ হয় তা হলে তো কিছু বলার নেই। তবুও বলব তামিম সঠিক কথাই বলেছে।’

সালাউদ্দিনের কোচিংয়েই বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চতুর্থ আসরেও তিনি চিটাগং ভাইকিংসের কোচ ছিলেন। চলতি আসরে মিরপুরের উইকেট নিয়ে কুমিল্লার কোচের মূল্যায়ন, ‘উইকেটটা আসলেই ভালো না। এটা টি-টোয়েন্টির জন্য ভালো উইকেট কখনোই বলব না। উইকেটে দুই ধরনের বাউন্স থাকে। লো হতে পারে। তবে এক ধরনের বাউন্স থাকলে সুবিধা। ব্যাটসম্যানদের জন্য বা যাদের খেলা দেখছি তাদের জন্য অনেক অসুবিধা। এই উইকেট আরও ভালো হলে ভালো। এবার তো উইকেট পর্যাপ্ত বিশ্রামও পাচ্ছে। দুদিন পর পরই একদিন বিশ্রাম। ভালো উইকেট আমরা আশা করতেই পারি।’

গতকাল খুলনার কাছে ১৪ রানে হারলেও পয়েন্ট তালিকার শীর্ষেই আছে কুমিল্লা। কোয়ালিফায়ার-১ এ তাদের প্রতিপক্ষ হতে পারে খুলনা বা ঢাকা। সেই ম্যাচে প্রতিপক্ষ হিসেবে কাউকে আলাদাভাবে চাইছেন না সালাউদ্দিন। তিনি বলেন, ‘আমার কোনো ফিলিংস নেই। টপে আছি বলে আলাদা ফিলিংস থাকবে তা নয়। টপে থাকি বা শীর্ষ চারে থাকি আলাদা কোনো ফিলিংস নেই। আলাদা ফিলিংস আসতে পারে টুর্নামেন্টের শেষে। সুপার ফোরের প্রতিপক্ষ সবাই শক্তিশালী। কাউকে আলাদাভাবে দেখার সুযোগ নেই।’

 

Share Button


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page