• বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৮:৪৮ অপরাহ্ন

মূলধন গঠনে আর্থিক সংকট এড়াতে বাংলাদেশে অর্থায়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ

আল ইসলাম কায়েদ
আপডেটঃ : সোমবার, ৮ জানুয়ারি, ২০১৮

ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং

 

এসএসসি পরীক্ষা:২০১৮

 

নির্মল ইন্দু সরকার, প্রভাষক

 

সেন্ট গ্রেগরী হাই স্কুল এন্ড কলেজ ঢাকা

 

নিচের উদ্দীপকটি পড়ো এবং প্রশ্নগুলোর উত্তর দাও:

 

জনাব আশরাফ ‘একটেল’ নামে একটি টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের একজন আর্থিক ব্যবস্থাপক। তিনি প্রতিষ্ঠানের সকল কাজের সিদ্ধান্ত গুলো সুচিন্তিতভাবে উপস্থাপন করেন এবং সকলে তা মূল্যায়ন করেন। তাই প্রতিষ্ঠানে আর্ির্থক ব্যবস্থাপনা ছাড়াও অন্যান্য সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কীভাবে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়া যায় তার চেষ্টা করেন সকলকে নিয়ে।

 

ক. ব্যবসায় অর্থায়ন কী?                                      ০১

 

খ. বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অর্থায়ন কেন গুরুত্বপূর্ণ।                                ০২
গ. জনাব আশরাফ আর্থিক ব্যবস্থাপক হিসেবে যে কাজগুলো প্রতিষ্ঠানের জন্য করে থাকেন তা বর্ণনা কর।                                            ০৩

 

ঘ. জনাব আশরাফ তার প্রতিষ্ঠানে আর্থিক ব্যবস্থাপনা ছাড়াও অন্যান্য সিদ্ধান্তের মাধ্যমে কীভাবে প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যান বলে তুমি মনে কর।                   ০৪

 

উত্তর:

 

ক. ব্যবসায় প্রতিষ্ঠান তার তহবিল সংগ্রহ ও বিনিয়োগের জন্য যে অর্থায়ন প্রক্রিয়া ব্যবহার করে, সেটিই ব্যবসায় অর্থায়ন।

 

খ. মূলধন গঠনে আর্থিক সংকট এড়াতে বাংলাদেশে অর্থায়ন অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বাংলাদেশ বিশ্বের একটি দরিদ্র দেশ বলে আর্থিক সংকট ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য একটি নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। এদেশে আর্থিক সংকট প্রকট। দেশের শিল্পায়ন ও উন্নতির জন্য যে পরিমাণ অর্থ দরকার দেশের ব্যাংকগুলো তা সামান্যই যোগান দিতে পারে। তাছাড়া ঋণের জন্য আবেদন করলেও সময়মতো ঋণ পাওয়া যায় না। এতে দেশের ব্যবসায় ও অন্যান্য শিল্পপ্রতিষ্ঠানে সঠিকভাবে অর্থায়ন আবশ্যক।

 

গ. জনাব আশরাফ আর্থিক ব্যবস্থাপক হিসেবে যে কাজগুলো প্রতিষ্ঠানের জন্য করে থাকেন সেগুলো হলো- ১. অর্থায়ন সিদ্ধান্ত ও

 

২. বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। অর্থায়ন সিদ্ধান্ত বলতে মূলত তহবিল সংগ্রহের প্রক্রিয়াকে বোঝায়। অপরদিকে, একটি দোকানের যন্ত্রপাতি ক্রয়-সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত একটি বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। উদ্দীপকে জনাব আশরাফ ‘একটেল’ নামে একটি  টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠানের একজন আর্থিক ব্যবস্থাপক। তিনি প্রতিষ্ঠানের সকল কাজের সিদ্ধান্ত সুচিন্তিতভাবে উপস্থাপন করেন এবং সকলে তা মূল্যায়ন করেন। অর্থায়ন সিদ্ধান্তের আওতায় তহবিল সংগ্রহের ভিন্ন উত্স নির্বাচন এবং এসব উেসর সুবিধা-অসুবিধা বিশ্লেষণ করে অর্থায়ন সংক্রান্ত পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়। সাধারণত চলতি ব্যয় নির্বাহের জন্য স্বল্পমেয়াদি উত্স থেকে অর্থ আর স্থায়ী ব্যয় নির্বাহের জন্য দীর্ঘমেয়াদি উত্স থেকে অর্থ সংগ্রহ করা হয়। অপরদিকে, বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে ব্যবসায় তহবিল সংগ্রহে মালিক পক্ষের নিজস্ব পুঁজি ও বিভিন্ন উত্স হতে ঋণ গ্রহণের মাধ্যমে ব্যবসায়ে তহবিল সংগ্রহ করা হয়। বড় কোম্পানিগুলো শেয়ার বিক্রয়ের মাধ্যমে মূলধন সংগ্রহ করতে পারে। এছাড়া, উত্পাদনকারি প্রতিষ্ঠানের জন্য উত্পাদনমুখি মেশিন ক্রয়, কারখানা নির্মাণের খরচও বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। ভবিষ্যতের পণ্য বিক্রয়ের পরিমাণ ও পণ্যের মূল্য নির্ধারণ একটি দুরুহ কাজ বলে বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত প্রতিষ্ঠানের একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত। অতএব, উদ্দীপকে জনাব আশরাফ আর্থিক ব্যবস্থাপক হিসেবে উপরিউক্ত কাজগুলো করেন।

 

ঘ. জনাব আশরাফ তার প্রতিষ্ঠানে আর্থিক ব্যবস্থাপনা ছাড়াও চলতি বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যান। আর্থিক ব্যবস্থাপনায় প্রধানত দুই ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে হয়। আর তা হলো আয় সিদ্ধান্ত বা অর্থায়ন সিদ্ধান্ত ও ব্যয় সিদ্ধান্ত বা বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত। এ দুই ধরনের সিদ্ধান্ত প্রতিষ্ঠানের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। উদ্দীপকে জনাব আশরাফ আর্থিক ব্যবস্থাপনার অর্থায়ন সিদ্ধান্ত এবং বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত ছাড়াও চলতি বিনিয়োগ সিদ্ধান্তের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যান। কী পরিমাণে কাঁচামাল ক্রয় বা প্রতিষ্ঠানের জন্য উপযোগী এবং সে অর্থ কোথা থেকে সংগ্রহ করা যাবে এ সংক্রান্ত সিদ্ধান্তকে চলতি বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত বলে। পরিশেষে বলা যায়, জনাব আশরাফ দৈনন্দিন প্রয়োজন নির্বাহ করার জন্য কী পরিমাণ নগদ অর্থ উঠানো উচিত, সেই সিদ্ধান্ত গ্রহণের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানকে এগিয়ে নিয়ে যান।
Share Button


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page