• বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

বন্যেরা বনে সুন্দর; শিশুরা মাতৃক্রোড়ে

আপডেটঃ : সোমবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০১৮

মো. সুজাউদ দৌলা, সহকারী অধ্যাপক

 

রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ,ঢাকা

 

সুপ্রিয় বন্ধুরা তোমাদের জন্য আশিস রইল। মনের আনন্দে পরীক্ষা হলে প্রবেশ করো। ভালো ফল লাভ করো এটিই কামনা করি।

 

ক অংশ – গদ্য

 

১। আমেরিকান ইন্ডিয়ান বা রেড ইন্ডিয়ান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আদি নৃ-গোষ্ঠী অর্থাত্ আদিবাসী সমপ্রদায়। মাতৃতান্ত্রিক এই সমাজে তাদের রয়েছে স্বতন্ত্র ভাষা, খাদ্যাভ্যাস, পোশাক-আশাক, চিত্রকলা, প্রযুক্তি ও সঙ্গীত তথা স্বতন্ত্র সংস্কৃতি।

 

ক) ‘ধুকধুকি’ শব্দটির অর্থ কী?              ১

 

খ) ‘বন্যেরা বনে সুন্দর; শিশুরা মাতৃক্রোড়ে।’- ব্যাখ্যা করো।               ২

 

গ) উদ্দীপকের আদিবাসী রেড ইন্ডিয়ানদের সাথে কোন সমপ্রদায়ের কী সাদৃশ্য রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।                                                                                                   ৩

 

ঘ) উদ্দীপকটি ‘পালমৌ’ রচনার সমগ্র ভাব ধারণ করে না। উক্তিটির যথার্থতা নির্ণয় করো।                                                                                                                  ৪

 

২। যে মোরে দিয়েছে বিশে ভরা বাণ

 

আমি দেই তারে বুক ভরা গান

 

কাঁটা পেয়ে তাকে ফুল করি দান সারাটি জনম ভর,

 

আপন করিতে কাদিয়া বেড়াই যে মোরে করেছে পর।

 

ক) ‘লোষ্ট্রাঘাত’ শব্দের অর্থ কী?                                                                                                                                                                                             ১

 

খ) ‘মানুষ মুহাম্মদ (স.)’ প্রবন্ধে ‘সুমহান প্রতিশোধ’ বলতে কী বোঝানো হয়েছে?                                                                                                                                ২

 

গ) উদ্দীপকে ‘মানুষ মুহাম্মদ (স.)’ প্রবন্ধের মহানবি হযরত মুহাম্মদ (স.) এর চরিত্রের যে দিকটির প্রতিফলন ঘটেছে তা আলোচনা করো।                                                        ৩

 

ঘ) “উদ্দীপকটি মহানবি হযরত মুহাম্মদ (স.) এর মানবীয় গুণাবলির খণ্ডচিত্র মাত্র।”-মন্তব্যটি বিশ্লেষণ করো।                                                                                           ৪

 

৩। পশুর যেভাবে জন্ম, সেভাবেই তার মৃত্যু। কিন্তু মানুষ শিক্ষার দ্বারা নিজেকে পরিবর্তন করে নেয়। পশুর কোনো দায়িত্ব নেই কিন্তু মানুষের দায়িত্ব আছে। সে দায়িত্ব তার নিজেকে সৃষ্টি করার দায়িত্ব আর নিজেকে সৃষ্টি করে বলেই সে জীবকুলে শ্রেষ্ঠ। সুতরাং, যে শিক্ষা মানুষকে পরিবর্তিত করতে পারে না, বলতেই হবে সে শিক্ষা ব্যর্থ।

 

ক) ‘নিগড়’ শব্দের অর্থ কী?                                                                                                                                                                                                   ১

 

খ) ‘অর্থ সাধনাই জীবন সাধনা নয়’-ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                                                                      ২

 

গ) উদ্দীপকের সাথে ‘শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব’ প্রবন্ধের সাদৃশ্যপূর্ণ দিকটি ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                               ৩

 

ঘ) ‘উদ্দীপকটি ‘শিক্ষা ও মনুষ্যত্ব’ প্রবন্ধের একটি বিশেষ দিকের প্রতিফলন মাত্র’-মন্তব্যটি বিশ্লেষণ করো।                     ৪

 

৪। বহুদিন পর কাবুলিওয়ালা স্নেহের মিনিকে দেখতে আসে তার বিয়ের দিনে। কথা প্রসঙ্গে মিনির বাবা জানতে পারেন, কাবুলিওয়ালার নিজ দেশে মিনির বয়সী একটি মেয়ে আছে। যার বিয়ে দেওয়ার সামর্থ্য তার নেই। শুনে মিনির বাবা মিনির বিয়ের খরচ কমিয়ে কিছু অর্থ কাবুলিওয়ালাকে দেন মেয়ের বিয়ে দেওয়ার জন্যে।

 

ক) অধর রায় গাছের জন্যে কত টাকা চেয়েছে?                                                                                                                                                                         ১

 

খ) দারোয়ার কাঙালীকে মারেনি কেন?                                                                                                                                                                                   ২

 

গ) উদ্দীপকের মিনির বাবার কোন বৈশিষ্ট্যটি ঠাকুরদাস মুখার্জীর মাঝে অনুপস্থিত?                                                                                                                            ৩

 

ঘ) ‘অভাগীর স্বর্গ’ গল্পের অধিকাংশ চরিত্রই ঠাকুরদাসের অনুরূপ-বিশ্লেষণ করো।                                                                                                                             ৪

 

খ অংশ – কবিতা

 

৫। এক যুগ আগে আমেরিকায় প্রচুর বিত্ত-বৈভবের মালিক হয়েছেন শামীম সাহেব। কিন্তু তারপরও তাঁর মনে কোনো সুখ নেই। সেখানকার পরিবেশ, প্রকৃতি, মানুষজন কোনো কিছুই তাকে আকৃষ্ট করে না। সারাক্ষণ মনটা পড়ে থাকে আঁকা বাঁকা মেঠো পথের ধারের কুঁড়ে ঘরে, যেখানে কেটেছে তার শৈশব, কৈশোরের সোনালি সময়।

 

ক) মাইকেল মধুসূদন দত্তের অমর কীর্তির নাম কী?                                                                                                                                                                    ১

 

খ) ‘আর কি হবে দেখা?’-কবির মনে এ সংশয় দেখা দিয়েছিল কেন?                                                                                                                                              ২

 

গ) উদ্দীপকের শামীম সাহেবের মানসিকতায় ‘কপোতাক্ষ নদ’ কবিতার কবির অনুভূতি প্রকাশ পেয়েছে তা ব্যাখ্যা করো।                                                                           ৩

 

ঘ) “উদ্দীপকের শামীম সাহেবের মানসিকতায় প্রতিফলিত অনুভূতির অন্তরালে যে ভাবটি উন্মোচিত হয়েছে তা-ই ‘কপোতাক্ষ নদ’ কবিতার মূলভাব।”-মন্তব্যটির সাথে তুমি একমত কিনা, আলোচনা করো।        ৪

 

৬।‘আবার আসিব ফিরে ধানসিঁড়িটির তীরে’-এই বাংলায়

 

হয়তো মানুষ নয়-হয়তো বা শঙ্খচিল শালিকের বেশে

 

হয়তো ভোরের কাক হয়ে এই কার্তিকের নবান্নের দেশে

 

কুয়াশার বুকে ভেসে একদিন আসিব এ কাঁঠাল ছায়ায়।’

 

ক) ‘প্রাণ’ কবিতায় কবি কেমন হূদয়ে স্থান চান?                                                                                                                                                                        ১

 

খ) কবি কীভাবে অমরত্ব লাভ করতে চান? ২

 

গ) উদ্দীপক ও ‘প্রাণ’ কবিতার মধ্যকার সাদৃশ্য ও বৈসাদৃশ্য তুলে ধরো।                                                                                                                                          ৩

 

ঘ) ‘উভয় কবির আকাঙ্ক্ষা ও চিন্তাধারা একই, শুধু প্রকাশভঙ্গি পৃথক।’-আলোচনা করো।                                                                                                                     ৪

 

৭।       দেখিনু সেদিন রেলে

 

           কুলি বলে এক বাবু সাব তারে

 

           ঠেলে দিলে নিচে ফেলে।

 

           চোখ ফেটে এলো জল

 

           এমনি করে কি জগত্ জুড়িয়া

 

           মার খাবে দুর্বল?

 

           ক) মুসাফির কতদিন ভুখা ছিল?                                                                                                                                                                                  ১

 

খ) ‘মানুষ’ কবিতায় ‘ক্ষুধার ঠাকুর’ বলতে কবি কী বুঝিয়েছেন?                                                                                                                                                    ২

 

গ) উদ্দীপকের কুলির সাথে মানুষ কবিতায় কার মিল খুঁজে পাওয়া যায়? ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                       ৩

 

ঘ) “উদ্দীপক ও ‘মানুষ’ কবিতায় কবি সাম্যবাদকে সবার উপরে স্থান দিয়েছেন”। মন্তব্যটি যাচাই করো।                                                                                                ৪

 

গ অংশ – সহপাঠ (উপন্যাস)

 

৮। দেশ বিভাগের পরও স্বাধীনতার পূর্ব পর্যন্ত বাংলার মানুষের যে ইতিহাস ছিল তা বঞ্চনার ইতিহাস। সকল প্রকার বৈষম্যের শিকার হয়ে বাংলার মানুষ মানবেতর দিনাতিপাত করতো। ক্ষুধা-দারিদ্র্য, রোগ-শোক ও দুর্ভিক্ষ, মহামারিতে নির্মম মৃত্যু হতো অসংখ্য মানুষের। ধ্বংসের মাঝ থেকে এক সময় জেগে ওঠে পূর্ব পাকিস্তানের মানুষ।

 

ক) বুধাকে মানিক রতন বলতো কে?                                                                                                                                                                                      ১

 

খ) ‘আমার নিজের বোঝা আমি নিজেই বইব’ বলতে প্রকৃতপক্ষে কী বোঝানো হয়েছে?                                                                                                                        ২

 

গ) উদ্দীপকে ‘কাকতাড়ুয়া’ উপন্যাসের যে প্রেক্ষাপটের দিক নির্দেশ করে-তার সাদৃশ্য নিরূপণ করো।                                                                                                    ৩

 

ঘ) ‘সামাজিক দিকটি ‘কাকতাড়ুয়া’ উপন্যাসে বর্ণিত হলেও উদ্দীপকের শেষ লাইনে প্রকাশিত চেতনা-ই প্রধান হয়ে উঠেছে’ তোমার মতামতের আলোকে বিশ্লেষণ করো।৪

 

৯। পরীবানু একটি এনজিওতে চাকরি করেন। এতে তার স্বামী চান মিয়া একটু অনীহা প্রকাশ করেন। কিন্তু বিধি বাম! বাস দুর্ঘটনায় চান মিয়া একটি পা হারালে পরীবানুকেই সংসারের হাল ধরতে হয়। এবার তার স্বামী উপলব্ধি করেন, ‘সুখী, সুন্দর সমাজ বিনির্মাণে নারীদের স্বনির্ভরতা আবশ্যক।’

 

ক) সূর্যাস্ত আইন কত সালে প্রণীত হয়?                                                                                                                                                                                    ১

 

খ) বহিপীর বইয়ের ভাষায় কথা বলেন কেন? ২

 

গ) উদ্দীপকের পরীবানু ও ‘বহিপীর’ নাটকের তাহেরার মধ্যে বৈসাদৃশ্য নিরূপণ করো।                                                                                                                        ৩

 

ঘ) “পরীবানুর চেতনা প্রগতিশীল কিন্তু তাহেরার জীবনযাত্রা ছিল অনিশ্চিত”-যৌক্তিক বিশ্লেষণ করো।                                                                                                  ৪

 

ঘ অংশ – সহপাঠ (নাটক)

 

১০।     দাদির মৃত্যুবার্ষিকীতে যোগ দিতে রূপক ও তার ছোট ভাই রূপমকে নিয়ে ওদের বাবা-মা ঢাকা থেকে ফরিদপুরে যাচ্ছিলেন। মহাসড়কে ভিন্ন দিক থেকে আসা একটি ট্রাককে পাশ কাটাতে গিয়ে রূপকের মা-বাবা ও ছোট ভাই মারা যায়। অলৌকিকভাবে রূপক বেঁচে গেলেও মুহূর্তের মধ্যে তার পৃথিবী এলোমেলো হয়ে যায়।

 

ক) গাঁয়ে কে মুড়ি ভাজত?                                                                                                                                                                                                    ১

 

খ) ‘ওকে দেখলে শকুনের বুঝি মনে হয় মরা মানুষ’-কথাটি ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                                         ২

 

গ) উদ্দীপকটি ‘কাকতাড়ুয়া’ উপন্যাসে বর্ণিত কোন বিশেষ ঘটনার কথা মনে করিয়ে দেয়-ব্যাখ্যা করো।                                                                                                 ৩

 

ঘ) ‘মহামারি ও দুর্ঘটনা’ মুহূর্তের মধ্যে মানুষের জীবনধারা তছনছ করে দিতে পারে-উক্তিটি বিশ্লেষণ করো।                                                                                             ৪

 

১১।     চা বাগানের শ্রমিক দীনুর মেয়ে প্রতিমাকে যৌতুকের টাকার অভাবে বাগানের সদ্য বিপত্নীক বৃদ্ধ ড্রাইভার গৌতমের সাথে বিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয় দীনু। প্রতিমা রাজি না হয়ে কর্মের সন্ধানে অন্যত্র বেরিয়ে পড়তে গেলে সবাই মিলে তাকে জোর করে ধরে বিয়ে দিতে চায়। প্রতিমা অসহায় অবস্থায় কান্নাকাটি করে এ বিয়ে ঠেকায়। অবশেষে সে নিজেই বিনা যৌতুকে প্রতিমাকে বিয়ে করার সিদ্ধান্ত নেয়।

 

ক) ‘বহিপীর’ নাটকের শুরুতে কোন গানের উল্লেখ করা হয়েছে?                                                                                                                                                    ১

 

খ) ‘এ কৃতজ্ঞতার তেজ নেশার মতো।’-এ কথা কে, কেন বলেছেন? ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                             ২

 

গ) উদ্দীপকের সাথে ‘বহিপীর’ নাটকের কোন দিকের সাদৃশ্য রয়েছে? ব্যাখ্যা করো।                                                                                                                          ৩

 

ঘ) “উদ্দীপকে ‘বহিপীর’ নাটকের সমগ্র দিক প্রতিফলিত হয়নি।”-উক্তিটি সম্পর্কে তোমার মতামত বিশ্লেষণ করো।                                                                                   ৪


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ