• বুধবার, ২৯ মে ২০২৪, ০৯:০৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
যে কারনে ইউরোপের তিন দেশ ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিলো, রোহিঙ্গাদের খেয়ে ফেলতো খাদ্য উৎপাদন না বাড়লে, কুকুরের সাথে করতো কাড়াকাড়ি: ব্রি’র ডিজি বঙ্গবন্ধু শিল্পনগরী পরিবেশ রক্ষা করেই বাস্তবায়িত হবে ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্তদের পাশে দাঁড়াতে শাবনূরের আহ্বান, আইএমও মহাসচিব ঢাকা সফরে আসছেন কাল নিউইয়র্কের রাস্তায় দেশের পতাকা হাতে মৌসুমী মাদক বিরোধী অভিযানে ৪শ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার, আটক ৩ তদবিরের টাকা ফেরত না পেয়ে পিটিয়ে হত্যা করলেন চাচা শ্বশুরকে, ভারতীয় অধিনায়কের স্ত্রীর সংহতি প্রকাশ ফিলিস্তিনিদের প্রতি  ঘূর্ণিঝড় রিমালে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ দ্রুত মেরামতের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মা ইলিশ আহরণ- প্রশাসন নীরব

আপডেটঃ : সোমবার, ১৬ অক্টোবর, ২০১৭

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি॥
জামালপুরের সরিষাবাড়ী উপজেলার বিভিন্ন হাট-বাজারে প্রকাশ্যে ইলিশ বিক্রি হচ্ছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে যমুনা নদী থেকে অবাধে ইলিশ ধরছে জেলেরা। যদিও ১ থেকে ২২ অক্টোবর ইলিশের প্রজনন মওসুম হওয়ায় এ সময় ইলিশ আহরণ, পরিবহন, মজুদ, বাজারজাতকরণ ও বিক্রয় দন্ডণীয় অপরাধ। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের কমপক্ষে ১ থেকে ২ বছরের সশ্রম কারাদন্ড অথবা সর্বোচ্চ ৫ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয়দন্ডের বিধান রয়েছে।
সরেজমিনে দেখা গেছে, আইন ও সরকারি নিষেধাজ্ঞার তোয়াক্কা না করে যমুনা নদীতে অবাধে ধরা হচ্ছে মা ইলিশ। যমুনা নদীর পিংনা, আওনা, পোগলদিঘা, সাতপোয়া, কামরাবাদ ও ভাটারা ইউনিয়নের যমুনার দুর্গম এলাকার বিভিন্ন জায়গায় জেলেরা নৌকা নিয়ে প্রতিদিনই সন্ধ্যা থেকে ভোর পর্যন্ত ইলিশ আহরণ করছে। সংগ্রহকৃত ইলিশগুলো তারাকান্দিসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে প্রকাশ্যে বিক্রি হলেও উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তরের কোন নজরদারী নেই বলে এলাকাবাসীর অভিযোগ।
এ ব্যাপারে সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা কৃষিবিদ নাজমুল হক বলেন, ‘ইলিশ আহরণ ও বিক্রির কিছু অভিযোগ শুনেছি, তবে অভিযান চালিয়ে তা পাওয়া যায়নি। মাঠ পর্যায়ে দৃষ্টি রাখা হয়েছে। ইতোমধ্যেই অভিযান চালিয়ে ৩০০ মিটার জাল জব্দ করে পুড়ানো হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের পেলে মোবাইল কোর্ট পরিচালনাসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ