• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

গলায় ফাঁস দিয়ে শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা

নিউজ ডেস্ক
আপডেটঃ : সোমবার, ৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪

বরিশালে ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির (আইএইচটি) ছাত্রী অন্তরা পানুয়া গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। সোমবার সকাল ৯টায় আইএইচটি ক্যাম্পাস সংলগ্ন শেবাচিম হাসপাতালের তৃতীয় শ্রেণির স্টাফ কোয়ার্টারের একটি ভবনের তিন তলার একটি কক্ষে আত্মহত্যা করে সে। খবর পেয়ে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করে।

অন্তরা পানুয়া পটুয়াখালী জেলার খলিশাখালি গ্রামের অনুকূল চন্দ্র পানুয়ার মেয়ে এবং আইএইচটি’র ডেন্টাল বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী ছিলেন। ৪ বছর আগে তার বিয়ে হয়। অন্তরা ও তার সহপাঠী সুমাইয়া আক্তার গত রবিবার আইএইচটি’র এক শিক্ষকের মাধ্যমে শেবাচিম হাসপাতালের তৃতীয় শ্রেণির স্টাফ কোয়ার্টারের একটি ভবনের তিন তলার একটি কক্ষে ওঠেন।

সুমাইয়া আক্তার জানান, সকালে ঘুম থেকে জেগে অন্তরার কোন সাড়াশব্দ পাচ্ছিলেন না তিনি। দরজার ফাঁক দিয়ে পাশের রুমে উকি দিয়ে দেখেন ফ্যানের হুকের সঙ্গে গলায় ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলছে অন্তরা। বিষয়টি সহপাঠীদের জানান। এরপর পুলিশে খবর দেয়া হয়।
আইএইসটির অধ্যক্ষ ডা. মানষ কৃষ্ণ কুন্ডু জানান, অন্তরার সঙ্গে ক্যাম্পাসে কারোর কোন দ্বন্ধ ছিল না। পারিবারিক কলহের জের ধরে সে আত্মহত্যা করতে পারে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনকারী কোতয়ালী মডেল থানার উপ-পরিদর্শক রেজাউল ইসলাম রেজা জানান, অন্তরার মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। তার আত্মহত্যার কারণ তদন্ত করা হচ্ছে।

Share Button


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই ক্যাটাগরির আরো নিউজ

You cannot copy content of this page

You cannot copy content of this page